বাচ্চাদের কম্পিউটার শেখাবে ‘কীবোর্ড’

কিন্ডারগার্টেনের বাচ্চাদের জন্য একটি ইন্টারেক্টিভ ভিডিও গেম আনুষঙ্গিক হিসাবে ক্লাউডবোর্ড কিকস্টার্টার প্রকল্প চালু করেছে ডিজিটাল ড্রিম ল্যাবস। এরই অংশ হিসাবে তারা এমন এক ধরনের কম্পিউটার কীবোর্ড উন্মোচন করেছে যা বাচ্চাদের কম্পিউটার শেখাবে।
e840dda4af545e4c1b65faeabcfc7bf7_L
প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট মাশাবেল ডটকমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শিক্ষাবিষয়ক বাচ্চাদের গেম তৈরি করতে ৫জন সদস্য নিয়ে গঠিত হয়েছে এ প্রকল্প। আর এ কীবোর্ডটির প্রথম পন্য। যাকে বলা হচ্ছে ক্লাউডবোর্ড। এটি দিয়ে বোর্ড গেম ও ভিডিও গেম উভয়ই খেলা যাবে।

৪ থেকে ১২ বছর বয়সী বাচ্চারা এটি ব্যবহার করতে পারবে। ভিডিও গেম নিয়ন্ত্রন করতে সক্ষম প্লাস্টিকের ব্লক এদের জটিল ধারণা শেখাতে সাহায্য করবে বলে মনে করছেন নির্মাতারা।

প্লাস্টিকের ব্লকগুলোর বহুমুখী ব্যবহার রয়েছে যার মাধ্যমে বাদ্যযন্ত্র নোট বা পরমাণুকে উপস্থাপন করতে পারবে তারা। ফলে তাদের নিজস্ব মেধা এবং কর্ম প্রচেষ্টা বৃদ্ধি পাবে খুব সহজে। যা একটি বাচ্চার বুদ্ধিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে।

ইতিমধ্যে এ প্রকল্পকে রসায়ন ও প্রকৌশল মত জটিল বিষয় নিয়ে বিভিন্ন গেল তৈরির অনুমোদন দিয়েছে ডিজিটাল ড্রিম ল্যাবস।

ভিডিও গেম দেখার আগে ক্লাউডবোর্ডটি দিয়ে খেলোয়ার বোর্ডে টাইলস ব্যবহার করে তাদের অক্ষরের জন্য একটি রুট ম্যাপ বের করবে। সম্পন্ন করতে না পারলে ভিডিওটি দেখে নিবে। এতে সে বাস্তব অর্থে হাতে কলমে শেখার সাহস এবং মানসিকতা তৈরি করতে পারবে।

ডিজিটাল ড্রিম ল্যাবস এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা পিটার কিননে বলেন, স্ক্রিনে কি হচ্ছে তা দেখা থেকে বাচ্চাদের দৃষ্টি ফিরিয়ে আনবে ক্লাউডবোর্ডটির সৌন্দর্য। শারীরিক ভাবে যদি কোন বস্তু সরানো হয় তবে তা মনে গেথে যায়, যা নতুন কিছু করার মানসিকতা তৈরি হয় নিজের মধ্যে। এটিই হচ্ছে হাতে কলমে শিক্ষা।

পিসি, ট্যাবলেট বা স্মার্টফোনের মতো প্রায় সর্বধরনের প্ল্যাটফর্মে এটি সংযোগ দেয়া যাবে।

  • Default
  • Facebook

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.